in

দিল্লিতে চোর সন্দেহে পিটিয়ে মারা হল ২৩ বছরের যুবককে

ফের সন্দেহের বশে রাজধানী দিল্লিতে (Delhi) গণপিটুনির (Mob Lynching) ঘটনা ঘটল। মোবাইল চোর সন্দেহে রাহুল নামে বছর তেইশের এক যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে পিটিয়ে মেরে ফেলা হল। শনিবার অমানবিক এই ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশ। তাদের নাম মুস্তাক আহমেদ, সিরাজ আহমেদ, আনিশ ও ইশতিহার।

ঘটনাটি ঘটেছিল গত শুক্রবার। এক প্রত্যক্ষদর্শীর কাছ থেকে ফোন পেয়ে দিল্লির লোহা মান্ডির নরৈনার ১০ ব্লকের এমসিডি পার্কে যায় পুলিশ। সেখান থেকেই ওই যুবকের নিষ্প্রাণ দেহ উদ্ধার করেন আধিকারিকরা। সেসময় যুবকের হাত-পা শক্ত দড়িতে বাঁধা ছিল। সারা শরীরে আঘাতের কালশিটে। অজ্ঞান অবস্থায় পড়েছিল ওই যুবক। ওই অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকরা ওই যুবককে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার প্রাথমিক তদন্তের পর দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রাহুলের বিরুদ্ধে আগে থেকেই একটি চুরির অভিযোগ ছিল। ১৫–২০ দিন আগেই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছিল সে। ঘটনার দিন, রাহুলের সাঙ্গপাঙ্গরা সিরাজের একটি নতুন মোবাইল ফোন চুরি করে বলে অভিযোগ। ওই পার্কের সামনে সিরাজের ট্রাক রাখা ছিল। সেই ট্রাকেই ফোনটি রেখেছিল সিরাজ। রাহুলের দলবল ফোনটি হাতিয়ে পালায়। কিন্তু, রাহুল ওই চার জনের হাতে ধরা পড়ে যায়। লোকচক্ষুর আড়ালে একটি পার্কে নিয়ে গিয়ে বড় গাছের সঙ্গে মোটা দড়ি দিয়ে আষ্টেপৃষ্টে বাঁধা হয় যুবককে। এরপর লোহার রড দিয়েই চলতে থাকে বেধড়ক মার।

লিশ জানিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে দড়ি ছাড়াও একটি সাদা মাফলার উদ্ধার করা হয়েছে। ওই দড়ি দিয়েই যুবককে বাঁধা হয়েছিল। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য যুবকের মৃতদেহ হরি নগরের ডিডিইউ মর্গে পাঠায় পুলিশ। এদিকে, আধিকারিকদের দাবি, ধৃতরা জেরায় নিজেদের দোষ স্বীকার করেছে। যে লোহার রড, লাঠি, পাইপ দিয়ে রাহুলকে পিটিয়ে মারা হয়েছে, সেগুলিও পুলিশ বাজেয়াপ্তো করেছে।

What do you think?

-1 points
Upvote Downvote

Written by Bongo Baarta Desk

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে শিক্ষকদের ভূমিকার প্রশংসা করে যা বললেন মোদী

রাজস্থানকে হারিয়ে দ্বিতীয় জয় ছিনিয়ে নিলো কলকাতা নাইট রাইডার্স