in

দুই দেশের বিদেশমন্ত্রীর আলোচনার পর ভারত জানাল ,পরিকল্পিত হামলা চিনের

পরিকল্পিত হামলা চিনের
পরিকল্পিত হামলা চিনের

লাদাখের সংঘর্ষের পর সীমান্তে উত্তেজনা প্রশমনে উদ্যোগী হলো ভারত এবং চিন দু’ পক্ষই৷ এ দিন চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-র সঙ্গে ফোনে কথা বলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর৷ গালওয়ানে সংঘর্ষের জন্য চিনকে দায়ী করে ভারতের তরফে জয়শঙ্কর কড়া বার্তা দিয়েছেন বলে ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে৷ তবে দুই বিদেশমন্ত্রীর আলোচনায় সীমান্তে উত্তেজনা কমানোর বিষয়ে দুই দেশই ঐক্যমতে পৌঁছেছে বলে সংবাদসংস্থার খবর৷ গত ৬ জুন দুই দেশের সেনাবাহিনীর কম্যান্ডার স্তরের বৈঠকে যে সিদ্ধান্ত হয়েছিল, তা মেনে চলতে রাজি হয়েছে দু’ পক্ষই৷

বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, গালওয়ানের সংঘর্ষ নিয়ে চিনের বিদেশমন্ত্রীকে এ দিন কড়া বার্তা দিয়েছেন এস জয়শঙ্কর৷ চিনকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে, দু’ দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে এই বেনজির ঘটনার গুরুতর প্রভাব পড়বে৷ পরিস্থিতির উন্নতির জন্য চিনকেই যে তাঁদের ভুল সংশোধন করে সঠিক পদক্ষেপ করতে হবে, ভারতের পক্ষ থেকে তা স্পষ্ট জানানো হয়েছে বলে বিদেশমন্ত্রকের দাবি৷

বিদেশমন্ত্রকের বিবৃতি অনুযায়ী এ দিন এস জয়শঙ্কর চিনের বিদেশমন্ত্রীকে বলেন, ‘গালওয়ানের ঘটনা চিনের পূর্ব পরিকল্পিত পদক্ষেপ এবং তার জেরে যা যা হয়েছে, তার জন্যেও চিনই দায়ী৷’
আলোচনায় অবশ্য দু’ তরফই আরও দায়িত্বশীল ভাবে সীমান্ত পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে৷ ৬ জুন দুই দেশের সেনা কর্তাদের বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে উভয় পক্ষই সচেষ্ট হবে বলে এ দিনের আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয়েছে৷ এই বৈঠকের পর সত্যিই লাদাখে উত্তেজনা কমে কি না, তা সময়ই বলবে৷ তবে কূটনৈতিক আলোচনা চললেও পরিস্থিতি অনুযায়ী পদক্ষেপ করার জন্য সেনাবাহিনীকে ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও এ দিন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ভারত শান্তির পক্ষে হলেও যে কোনও উস্কানির যোগ্য জবাব দেওয়ার ক্ষমতা রাখে৷

What do you think?

Written by Bongo Baarta Desk

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0
অন্তত পক্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছে লাদাখ সীমান্তে

লাদাখে চিনা সেনাদের সংঘর্ষে শহীদ অন্তত ২০ জন ভারতীয় জওয়ান

মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী

বাংলায় ‘সেফ হোম সেন্টার’ চালু করার কথা ঘোষণা করলেন মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী