in

অক্সফোর্ডের ভ্যাক্সিনে আশার আলো দেখাচ্ছে

এত নেগেটিভিটির মধ্যে মানুষ শুধ একটাই আশার মুখ চেয়ে বসে আছে। যার নাম ভ্যাক্সিন। কবে প্রতিষেক আসবে, তবে যদি আবার পুরনো ছন্দে ফেরা যায়।

আর এই ভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে সবার আগে যারা আলো দেখাতে শুরু করেছিল, তাদের মধ্য অন্যতম ‘অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি’। এরাই সবার আগে হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করে। তাই সেদিকেই তাকিয়ে বসে আছে গোটা বিশ্ব। আর সেখান থেকে খুব তাড়াতাড়ি কিছু একটা খবর আসতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবারই কোনও ইতিবাচক রেজাল্ট আসতে পারে বলে জানা গিয়েছে। আইটিভি-র পলিটিক্যাল এডিটর রবার্ট পেস্টন এমনটাই জানিয়েছেন।

ফেজ-থ্রি হিউম্যান ট্রায়ালের পরীক্ষা চলছে। কিন্তু এখনও ফেজ ওয়ানের রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়নি। এটা নিরাপদ কিনা, তা পরীক্ষা করা হবে। জুলাইয়ের শেষেই তার ফলাফল আসবে। ল্যান্সেট মেডিক্যাল জার্নালে সেই ডেটা প্রকাশিত হবে বলে জানা গিয়েছে।

অক্সফোর্ডের এই ভ্যাক্সিনের ‘অ্যাস্ট্রা জেনেকা’র লাইসেন্স রয়েছে। গোটা বিশ্ব জুড়ে একগুচ্ছ ভ্যাক্সিনের ট্রায়াল চলছে। তবে তার মধ্যে অক্সফোর্ডের গবেষণায় যে বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে সেকথা জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও।

এদিকে, সোমবার থেকেই ভারতে শুরু হয়েছে ‘কোভ্যাক্সিন’-এর হিউম্যান ট্রায়ালের প্রক্রিয়া। ভারতীয় সংস্থা ‘ভারত বায়োটেক’ আইসিএমআরের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই ভ্যাক্সিন তৈরি করেছে। সোমবার থেকেই মানবদেহে সেই ভ্যাক্সিনের পরীক্ষা-নিরিক্ষা শুরু করবে পাটনার এইমস।

ফেজ ওয়ানের ফলাফল সামনে আসলে পরের ধাপে পরীক্ষা হবে। ১২টি ইনস্টিটিউট বেছে নেওয়া হয়েছে ট্রায়ালের জন্য। এর মধ্যে রয়েছে দিল্লি ও পাটনার এইমস।

What do you think?

Written by Bongo Baarta Desk

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

জিওতে ৩৩,৭৩৭ কোটি বিনিয়োগ করলো গুগল

মমতা ব্যানার্জী

সরকার ভগবান নয়, সাহায্য ছাড়াই কাজ করতে হচ্ছে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী