অফবিট

‘ডবল প্রোটেকশন’ দেবে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন,এমনটাই দাবি গবেষকদের

করোনার প্রতিষেধক নিয়ে নতুন আশার আলো দেখালেন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা৷ তাঁদের তৈরি প্রতিষেধকের হিউম্যান ট্রায়ালের পর প্রাথমিক রিপোর্টে তাঁরা মনে করছেন, এই ভ্যাকসিন করোনার বিরুদ্ধে মানব দেহকে ডবল প্রোটেকশন দিতে সক্ষম৷

গবেষণার সঙ্গে যুক্ত এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যমগুলিতে এমনই দাবি করা হয়েছে৷ যে স্বেচ্ছাসেবকদের উপরে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে, তাঁদের রক্তের নমুনা পরীক্ষা করার পর এমনই দাবি করা হচ্ছে৷ প্রতীকী ছবিদ্য টেলিগ্রাফের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ভ্যাকসিন প্রয়োগের পর স্বেচ্ছাসেবকদের শরীরে অ্যান্টিবডির পাশাপাশি ‘কিলার টি-সেল’ তৈরি হচ্ছে৷ গবেষকদের দাবি, অ্যান্টিবডির ক্ষমতা কয়েকমাসের মধ্যে হ্রাস পেলেও টি- সেল বেশ কয়েক বছর সক্রিয় থাকে৷
তবে ওই সূত্র একই সঙ্গে সতর্ক করে বলেছে, প্রাথমিকভাবে এই ভ্যাকসিনের ফলাফল অত্যন্ত আশা জাগালেও এই ভ্যাকসিন যে দীর্ঘমেয়াদী ভিত্তিতে করোনার বিরুদ্ধে সুরক্ষা জোগাবে, তা এখনও নিশ্চিত করে বলার মতো সময় আসেনি৷

সূত্রকে উদ্ধৃত করে বলা হচ্ছে, অ্যান্টি বডি এবং টি- সেলের এই জোড়া ফলাই করোনার বিরুদ্ধে শরীরকে দ্বিগুণ সুরক্ষা দিতে সক্ষম৷ মেডিক্যাল জার্নাল ‘দ্য ল্যানসেট’ জানিয়েছে, অক্সফোর্ডের তৈরি এই ভ্যাকসিন মানব দেহে প্রয়োগের যে প্রাথমিক ফলাফল পাওয়া গিয়েছে, তা তারা আগামী সোমবার প্রকাশ করবে৷

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের Jenner Institute-এ এই ভ্যাকসিন তৈরি হলেও গ্রেট ব্রিটেন সরকার এবং AstraZeneca সংস্থা এই ভ্যাকসিন তৈরিতে সাহায্য করছে৷ এই ওষুধ নির্মাতা সংস্থাই ভ্যাকসিনের বাণিজ্যিক উৎপাদনের দিকে নজর রাখছে৷

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close