রাজ্য

বিহারে বাজ পড়ে কমপক্ষে ৮৩ জনের মৃত্যু

মৃতদের পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার

রেড অ্যালার্ট জারি করা আগেই হয়েছিল। কিন্তু এত মারাত্মক ঝড়ের আশা বোধ হয় আবহবিদরাও করেননি। বৃহস্পতিবার বিহারে প্রচন্ড ঝড়ে প্রাণ হারালেন কমপক্ষে ৮৩ জন। মৃতের সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে বলে মনে করছে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর।

রিপোর্ট অনুযায়ী, বিহারের ৮৩ জন নিহতের মধ্যে ১৩ জনই গোপালগঞ্জ জেলায়। এ ছাড়া মধুবনী ও নবাদা জেলায় ৮ জন করে, ভাগলপুর ও সিওয়ানে ছ’জন করে এবং বাঁকা, দারভাঙা ও পূর্ব চম্পারণ জেলায় পাঁচজন করে নিহত হয়েছেন।

এর বাইরে খাগরিয়া ও আওরঙ্গাবাদ জেলায় তিনজন করে, জহানাবাদ, কিশনগঞ্জ, পশ্চিম চম্পারণ, যমুই, পূর্ণিয়া, সুপৌল, কাইমুর ও বাক্সারে দু’জন করে এবং সরণ, শিবহর, সমতীপুর, মধেপুরা ও সীতামারীতে একজনের করে মৃত্যু হয়েছে।

গোপালগঞ্জের জেলাশাসক আরশাদ আজিজ জানিয়েছেন, “জেলার বিভিন্ন অংশে বাজ পড়ে ১২-১৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। সাধারণ মানুষকে অনুরোধ করা হচ্ছে, বৃষ্টির সময় বাড়ির বাইরে না বেরোতে। বাইরে থাকলেও গাছের নীচে দাঁড়াবেন না”।

মৃতদের পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। বিহারের গোপালগঞ্জ জেলায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৩ জন। দেওয়াল ভেঙে পড়ে, গাছ ভেঙে পড়ে আহত হয়েছে অসংখ্য। আপাতত সবাইকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পৌঁছনোর ব্যবস্থা করছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close