in

উত্তরবঙ্গে ফের প্রবল বর্ষার আশঙ্কা, দক্ষিণবঙ্গেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

ফের একটানা অতিভারী বৃষ্টি উত্তরবঙ্গে। প্রবল বৃষ্টি হবে আসাম মেঘালয়ে। বুধবার পর্যন্ত প্রবল বৃষ্টির সর্তকতা উত্তরবঙ্গে। ২০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা। পাহাড়ি এলাকায় ধ্বস আর নিচু এলাকায় প্লাবনের সম্ভাবনা। রবি ও সোমবার দক্ষিণবঙ্গেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।
আবারও হিমালয়ের পাদদেশে আসছে সক্রিয় মৌসুমী অক্ষরেখা। এর প্রভাবে প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে। বর্তমানে মৌসুমী অক্ষরেখা আজমের ডালটনগঞ্জ হয়ে শান্তিনিকেতনেরর উপর দিয়ে ত্রিপুরা পর্যন্ত বিস্তৃত। আগামী ২৪ ঘণ্টায় এই মৌসুমী অক্ষরেখা আরও উপরে উঠে হিমালয়ের পাদদেশ এলাকায় অবস্থান করবে। একইসঙ্গে দক্ষিণা ও দক্ষিণ-পশ্চিমী বাতাসে ভর করে বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছে।

শনিবার থেকেই বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টি শুরু হবে উত্তরবঙ্গে। দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি জেলাতে ৭০ থেকে ২০০ মিলিমিটার বৃষ্টি এবং মালদা ,উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে ৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা। বৃষ্টি বাড়বে রবিবার ও সোমবার।এই দু’দিন উত্তরবঙ্গে প্রবল বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি জেলা থেকে কোথাও কোথাও ২০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা। ভারী বৃষ্টি হবে মালদহ ও দুই দিনাজপুরে। মঙ্গল ও বুধবারেও কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারে প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা ৷ ভারী বৃষ্টি হবে দার্জিলিং, কালিম্পং ও জলপাইগুড়িতে।দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টি হবে উত্তরবঙ্গের লাগোয়া জেলাগুলিতে। বীরভূম, মুর্শিদাবাদে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রবল। ভারী বৃষ্টি হতে পারে নদিয়াতেও। রবি ও সোমবার বজ্রবিদ্যুৎ- সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস।

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা ৷ উত্তর পূর্ব ও পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে বুধবার পর্যন্ত ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে ৷

What do you think?

Written by Bongo Baarta Desk

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

করোনা যুদ্ধে শতাধিকেরও বেশি দেশকে সাহায্য করেছে ভারত, বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

কলকাতায় পাওয়া যাচ্ছেনা কোভিড ড্রাগ, ওষুধ জোগাড় করতে নাজেহাল আক্রান্তদের পরিবার